সাদাঘাড় কালো দামা

‘সাদাঘাড় কালো দামা’ ভূচর পাখি। গো-বেচারা টাইপ চেহারা। গায়ক পাখি। গানের গলাও ভালো। গাছের উঁচু ডালে বসে খুব ভোরে এবং গোধূলিলগ্নে গান গায়। স্বভাবে...

পাটকিলে মাথা ছাতারে

আবাসিক পাখি। দেখতে চমৎকার। গ্রামীণ বনেবাদাড়ে অল্পবিস্তর নজরে পড়ে। সমগ্রবিশ্বে এদের অবস্থান খুব বেশি সন্তোষজনক নয়। বাংলাদেশ ছাড়াও বৈশ্বিক বিস্তৃতি ভারত, নেপাল, মিয়ানমার, চীন,...

হীরামন

স্থানীয় প্রজাতির পাখি। অসুলভ থেকে বিরল। মাঝেমধ্যে দেখা মিলে মিশ্র চিরসবুজ বনে। বিশেষ করে সিলেট থেকে টেকনাফ পর্যন্ত যেসব বনাঞ্চল রয়েছে, ওই সব বনাঞ্চলের...

কালাপেট পানচিল

আবাসিক পাখি। সুচালো স্লিম আকৃতির গড়ন। দেখতে মন্দ নয়। উপকূলীয় অঞ্চলের নদ-নদীতে এদের দেখা মিললেও মূলত এরা সামুদ্রিক পাখি। হ্রদ কিংবা নদ-নদীতে বিচরণের পাশাপাশি...

লালগলা ডুবুরি

পরিযায়ী পাখি। শীতে দেখা মেলে। বিচরণ করে স্বাদুজলে। বিচরণ করে জোড়ায় জোড়ায়। মাঝেমধ্যে ছোট দলেও নজরে পড়ে। হ্রদ কিংবা বড় জলাশয়ে দেখা মেলে। সাঁতারে...

পাতি কাক

দেশের স্থায়ী বাসিন্দা। বিচরণ করে যত্রতত্র। শুধু তাই নয়, মানুষের সান্নিধ্য পেতে এরা বাড়ির আশপাশে বিচরণ করে। পচাগলা খেয়ে মানুষের যথেষ্ট উপকারও করে। সামাজিক...

তামাপিঠ লাটোরা

অনিয়মিত পরিযায়ী পাখি। বাংলাদেশ ছাড়া বৈশ্বিক বিস্তৃতি ভারত, নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, ইরান ও তুরস্ক পর্যন্ত। বিচরণ করে আবাদি জমি, বনপ্রান্তরের খোলা...

হলুদচোখ ছাতারে

দেশের স্থায়ী বাসিন্দা। বিচরণ করে একাকী কিংবা জোড়ায়। হাঁটে লাফিয়ে লাফিয়ে। ভালো উড়তে পারে না। স্বভাবে চঞ্চল হলেও অন্যসব ছোট প্রজাতির পাখিদের সঙ্গে মিলেমিশে...

ধলালেজ চুনিকণ্ঠী

বাংলা নাম ‘ধলালেজ চুনিকণ্ঠী’। ইংরেজি নাম হোয়াইট টেইলড রুবি-থ্রোট (White-tailed Ruby-throat)। বৈজ্ঞানিক নাম Luscinia pectoralis। এরা ‘হিমালয়ের লালগলা’ নামেও পরিচিত। এ পাখি দেখতে ‘সাইবেরীয় চুনিকণ্ঠী’র...

পাতারি ফুটকি

বিরল দর্শন ভবঘুরে পাখি। দেশে খুব বেশি দেখা যাওয়ার নজির নেই। দুই-তিনবার দেখা যাওয়ার রেকর্ড রয়েছে। চেহারা চড়–ই আকৃতির হলেও সামান্য লম্বা ধাঁচের। আকারে...

লালঘাড় পেঙ্গা

‘লালঘাড় পেঙ্গা’ পাখি স্থানীয় প্রজাতির। তবে যত্রতত্র দেখা যায় না। ভিতু প্রকৃতির। এদের আবাসস্থল ক্রান্তীয় আর্দ্র নিম্ন ভূমির বন এবং ক্রান্তীয় আর্দ্র পার্বত্য অরণ্যে। এ...

সবুজ-ডোরা কাঠঠোকরা

বিরল আবাসিক পাখি। দেখা মেলে প্যারাবনে, চিরসবুজ বন, এবং উপকূলীয় এলাকার ঝোপ-জঙ্গলে। দেশে দেখা মেলে সুন্দরবনাঞ্চলে। বিচরণ করে একা কিংবা জোড়ায় জোড়ায়। খাদ্যের সন্ধানে...

কালোবুক বাটান

পরিযায়ী প্রজাতির পাখি। বৈশ্বিক বিস্তৃতি রাশিয়া, পশ্চিম ইউরোপের উপকূল, আইসল্যান্ড, গ্রীনল্যান্ড, উত্তর-পূর্ব কানাডা ও মধ্যপ্রাচ্যের ক্রান্তীয় দক্ষিণ অঞ্চল পর্যন্ত। উপমহাদেশে আগমন ঘটে শীতে। চেহারা...

লেজচোখা হরিয়াল

কবুতর আকৃতির গড়ন। তাগড়া শরীর। নজরকাড়া রূপ। স্থানীয় প্রজাতির পাখি। বিরল দর্শন। স্বভাবে শান্ত, মিশুকও। অন্য প্রজাতির দূরের কথা, নিজ প্রজাতির কারও সঙ্গেও পারতপক্ষে...

কালাঘাড় ডুবুরি

বিরল দর্শন পরিযায়ী পাখি। কেবল প্রচণ্ড শীতে সিলেটের হাওরাঞ্চলে অল্পবিস্তর দেখা মেলে। স্বাদুজলে বিচরণ করে। বিচরণ করে জোড়ায় জোড়ায়। মাঝেমধ্যে ছোট দলেও নজরে পড়ে।...

বড়ঠোঁটি গাংচিল

ভবঘুরে প্রজাতির পাখি। স্লিম গড়ন। উপকূলীয় অঞ্চলের নদ-নদীতে দেখা মেলে। বিচরণ করতে দেখা যায় বালুবেলাতেও। এছাড়া কৃষি জমিতে বিচরণ রয়েছে। মিঠা জলের চেয়ে লবণ...

বেগুনি পিঠ শালিক

বেগুন রঙের বা বেগুনি পিঠ শালিক পান্থ পরিযায়ী পাখি। দেখতে কিছুটা গো-শালিকের মতো। তবে সুদর্শন ও নিরীহ। বাংলাদেশ ছাড়াও এদের বৈশ্বিক বিস্তৃতি ভারত, মিয়ানমার,...

মেঠো রাতচরা

দেশের স্থায়ী বাসিন্দা হলেও যততত্র দেখা যায় না। তুলনামূলক পাথুরে এবং মজা এলাকায় বেশি নজরে পড়ে। এ ছাড়াও তৃণময় সমভূমি এলাকায় দেখা মেলে। প্রজনন...

প্রশান্ত শৈলবগা

প্রশান্ত শৈলবগা। অতি বিরল পরিযায়ী পাখি। চেহারা তত আকর্ষণীয় নয়। উপকূল ও মোহনা এলাকায় বিচরণ করে। খুব বেশি দেখা যাওয়ার তথ্য নেই। ...

পাহাড়ি ধূমকল

দেশের স্থায়ী বাসিন্দা হলেও যত্রতত্র এবং সচরাচর নজরে পড়ে না। কেবলমাত্র দেখা মেলে চট্টগ্রাম-পার্বত্য চট্টগ্রামের মিশ্র চিরসবুজ বনের গহীনে। বিশ্বে এদের প্রাকৃতিক আবাসস্থল ক্রান্তীয়...

কাঠ শালিক

এ প্রজাতির অন্যান্য পাখি আমাদের প্রতিবেশী হলেও এদের ভেতর মানুষকে এড়িয়ে চলার প্রবণতা দেখা যায় বেশি। যার ফলে পরিচিত এ পাখি সর্বসাধারণের কাছে অপরিচিত...

ঘুরঘুরি

হিমালয় অঞ্চলের পাখি হলেও দেখা মেলে ইউরোপ, আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন এলাকায়। শীতে পরিযায়ী হয়ে আসে আমাদের দেশে। বিচরণ করে সুপেয় জলের...

নলঘোঙ্গা

আমার ঘরের পশ্চিম দিকে রয়েছে ছোট্ট একটি জলাশয়। বছরের অধিকাংশ সময় কচুরিপানায় ঠেঁসে থাকে জলাশয়টি। ব্যবহারের অযোগ্য হওয়ায় পারতপক্ষে কেউ ওখানে নামে না এখন...

আগুনে লালগলা

পরিযায়ী প্রজাতির হলেও আগমন সময়সূচির হেরফের রয়েছে। তবে উত্তর-পূর্ব ভারত এবং বাংলাদেশের পাহাড়ি অঞ্চলে শীতকালে দেখা যাওয়ার নজির রয়েছে। পুরুষ পাখি আকর্ষণীয় রূপ ধারণ...

জলময়ূর

ক’বছর আগে গেছি শ্রীমঙ্গল জেলার হাইল হাওরে। এর আগে হাইল হাওরের নাম শুনেছি। নাম শুনেছি জলময়ূরের, কিন্তু দেখা হয়নি। সে সুবাদে দুটো জিনিস দেখার...

কালি ময়ূর

প্রায় সাড়ে তিন যুগ আগেও আমাদের দেশের গহিন জঙ্গলগুলোতে এ পাখির প্রচুর বিস্তৃতি ছিল। বিশেষ করে চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম, শ্রীমঙ্গলের চা বাগানে স্থায়ী বাসিন্দা...