বাংলা ডাহর

ছবি: ইন্টারনেট। বিলুপ্ত প্রজাতির পাখি। দেশে প্রায় ৬৫-৭৫ বছর আগে দেখা গেছে। এক সময় ঢাকা বিভাগ এবং উত্তরবঙ্গের তৃণভূমিতে দেখা যেত। হালে দেখা যাওয়ার রেকর্ড...

বাদামি পিঠ সুচ লেজ বাতাসি

চেহারা তত আকর্ষণীয় নয়। দেখতে হিংস মনে হলেও তত হিংস নয় এরা। কেবলমাত্র আক্রান্ত হলে আক্রমণ করে। মানুষের হাতে বন্দি হলে ঠোঁট এবং নখের...

জলার চিল

উপমহাদেশীয় অঞ্চলে পরিযায়ী হয়ে আসে। দেখা মেলে শীত মৌসুমে। বাংলাদেশ ছাড়া বৈশ্বিক বিস্তৃতি ভারত, পাকিস্তান, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা, সাইবেরিয়া, উত্তর মঙ্গোলিয়া, ফিলিপাইন, উত্তর-পূর্ব চীন, জাপান,...

বাংলা ঝাড়ভরত

‘ভরত’ গায়ক পাখি। খুব ভোরে গান গায়। বাসা বাঁধার সময় পুরুষ পাখি শূন্যে উড়ে মিষ্টি সুরে গাইতে থাকে। স্ত্রী পাখি তখন একদম চুপচাপ থাকে।...

মেটেমাথা কুরাঈগল

ছবি: ইন্টারনেট। আবাসিক পাখি। মোহনা এবং উপকূলের কাছাকাছি জলাশয় ও নিম্নভূমির বন প্রান্তরে বিচরণ করে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৫০০ মিটার উঁচুতেও দেখা যায়। বৈশ্বিক বিস্তৃতি বাংলাদেশ...

সাদামাথা সাতভায়লা

‘সাদামাথা সাতভায়লা’ দেখতে অনেকটাই ‘ধলাঝুঁটি পেঙ্গা’ পাখির মতো। চেহারায় পার্থক্য নেই খুব একটা। পেঙ্গাদের খাড়া ঝুঁটি এবং চোখের নিচে কালো চওড়া টান থাকে। অন্যদিকে...

বাদামি জলদস্যু পাখি

সামুদ্রিক পাখিদের মধ্যে প্রজাতিটি হিংস্রতায় অদ্বিতীয়। দেখতে বোকাসোকা মনে হলেও প্রকৃতপক্ষে স্বভাব দস্যুদের মতো। ছোট পাখিদের খাবার ছিনতাইয়ের পাশাপাশি ওদেরকেও বধ করার চেষ্টা করে।...

লালপেট ঈগল

পরিযায়ী পাখি। শীতে আগমন ঘটে। বিচরণ করে চিরহরিৎ, পর্ণমোচী বনপ্রান্তরে। এ ছাড়াও সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩০০-১২০০ মিটার উঁচুতেও দেখা মেলে। উঁচু থেকে নামার সময় ডানা...

দেশি সারস

দেশি এবং পরিযায়ী মিলিয়ে বাংলাদেশে বিচরণ করে প্রায় ৬৫০ প্রজাতির পাখি। এর মধ্যে সবচেয়ে উঁচুতম পাখি ‘দেশি সারস’। এদের উচ্চতা প্রায় এক মানুষ সমান।...

জলদস্যু পাখি

বাংলা নাম: ‘জলদস্যু পাখি’। ইংরেজি নাম: ‘প্যারাসিটিক’(Parasitic Jaeger)। বৈজ্ঞানিক নাম: Stercorarius parasiticus। এরা ‘পরজীবী জেগার’ নামেও পরিচিত। পরিযায়ী এ পাখি বিচরণ করে মহাসাগরের উপকূল কিংবা...

সাদাটে মেঠো চিল

বিরল প্রজাতির ভবঘুরে পাখি। লম্বা পা, হলুদ গোলাকার চোখ ওদেরকে রাগী চেহারায় রূপ দিয়েছে। মূলত এরা হিংস্র নয়। বরং প্রজাতির অন্যদের তুলনায় দেখতে খানিকটা...

ভুবন চিল

‘ভুবন চিল’ মাঝারি আকারের শিকারি পাখি। দেশের স্থায়ী বাসিন্দা। মূলত এরা নাতিশীতোষ্ণ এবং গ্রীষ্মমণ্ডলীয় অঞ্চলের বাসিন্দা। বৈশ্বিক বিস্তৃতি এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়া...

লেবুকোমর ফুটকি

পরিযায়ী পাখি। বাবুই পাখির আদলে গড়ন। গাট্টাগোট্টা মায়াবী চেহারা। পাহাড়ি অঞ্চলের সরলবর্গীয় বনের বাসিন্দা। বিশেষ করে ওক এবং পাইন বনে বেশি দেখা যায়। এ...

খাকি ভুতুম পেঁচা

আবাসিক পাখি। মূলত এরা নদ-নদী, হ্রদ কিংবা বড়সড় জলাশয়ের কাছাকাছি বৃক্ষে বিচরণ করে। বহমান জলাশয়ের আশপাশে বেশি দেখা যায়। বিচরণের ক্ষেত্র ক্রান্তীয় থেকে নাতিশীতোষ্ণ...

ধলালেজ ঈগল

‘ধলালেজ ঈগল’ পরিযায়ী সামুদ্রিক পাখি। শীতে পরিযায়ী হয়ে আসে। দেশে সমুদ্র উপকূলীয় এলাকার জলাশয় নদ-নদীর মোহনায় এদের সাক্ষাৎ মেলে। দেশের বিচরণরত ঈগল প্রজাতির পাখিদের...

সাদা-ভ্রু দামা

মূলত পরিযায়ী পাখি। তৈগা ও সাইবেরিয়া অঞ্চলের সরলবর্গীয় বনে বিচরণ করে। শীতে বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান, মিয়ানমার, তাইওয়ান, উত্তর চীন, ফিলিপাইন ও ইন্দোনেশিয়াতে পরিযায়ী হয়ে...

সাদাডানা গাংচিল

দেখতে রাগী রাগী চেহারার মনে হলেও স্বভাবে এরা শান্ত। ঝগড়াঝাটি তেমন পছন্দ নয়। তবে নিজেদের মধ্যে কম-বেশি ঝগড়া বাধলেও তা দীর্ঘ সময় পর্যন্ত গড়ায়...

কালচে প্রিনা

গোবেচারা টাইপ চেহারা। স্লিম গড়ন। দেহের তুলনায় লেজ খানিকটা লম্বা। স্বভাবে ভারি চঞ্চল। গাছের চিকন ডালে লাফিয়ে বেড়ায়। সারাদিন ব্যস্ত সময় কাটায় ওড়াউড়ি করে।...

লম্বাঠোঁটি দামা

ভূচর পাখি। স্বভাবে পরিযায়ী। দেশে শীতে পরিযায়ী হয়ে আসে। প্রজাতির অন্যদের মতো চেহারা তত আকর্ষণীয় নয়। বিচরণ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে। হিমালয়ের ২২০০-৩৮০০ মিটারেও...

শিয়ালেবুক নীল চটক

হিমালয়াঞ্চল থেকে পরিযায়ী হয়ে আসে। আমাদের দেশে বিচরণ করে চিরহরিৎ এবং মিশ্র মোচাকৃতি এবং পর্ণমোচী লতাগুল্মে। অন্যান্য স্থানে প্রাকৃতিক আবাসস্থল ক্রান্তীয় আর্দ্র নিন্মভূমির বনে...

পাহাড়ি টুনটুনি

পরিচিত প্রজাতির ‘টুনটুনি’ পাখির মতো যত্রতত্র এদের দেখা মেলে না। কেবলমাত্র দেখা মেলে ক্রান্তীয় আর্দ্র নিম্নভূমির বনে এবং ক্রান্তীয় আর্দ্র পার্বত্য অরণ্যে। পাহাড়ি চিরসবুজ...

কালো ধূসর বুলবুলি | Ashy Bulbul | Hemixos flavala

আবাসিক পাখি। সিলেট অঞ্চলে কমবেশি নজরে পড়ে। এরা ‘বাংলা বুলবুলি’র জ্ঞাতিভাই। শারীরিক গঠনেও বেশ মিল রয়েছে, তবে রঙ ভিন্ন। স্থানীয় প্রজাতির হলেও এদের বিচরণ...

ভূমা পেঁচা

স্থানীয় প্রজাতির পাখি। ভয়ঙ্কর দর্শন। হলুদ রঙের গোলাকার চোখ। গোলাকার শারীরিক গঠনও। দিনে গাছের বড় পাতার আড়ালে লুকিয়ে থাকে। কিছুটা লাজুক স্বভাবের বলা যায়।...

ঝুঁটিওয়ালা ঠোঁটকালো গাংচিল

পরিযায়ী পাখি। স্যান্ডউইচ আকৃতির গড়ন। দেখতে অনেকটাই ‘বড়ঠোঁটি গাংচিল’দের মতো। চাল-চলনও ওদের মতোই। প্রজাতির দেখা মেলে উপকূলীয় অঞ্চলের নদ-নদীতে। বালুবেলাতেও বিচরণ করতে দেখা যায়।...

ধূসর সারস

বিপন্ন প্রজাতির পরিযায়ী পাখি। দেশে আগমন ঘটে শীতে। হিমালয় পাড়ি দিয়ে মাঝেমধ্যে সিলেটের হাওরাঞ্চলে উপস্থিত হয়। বিচরণ করে জলাশয়ের কাছাকাছি তৃণভূমি, কৃষি ক্ষেত, চারণভূমি,...

সবুজ বাঁশপাতি

শীতের দুপুর। সবে খাবারের পর্ব শেষ হয়েছে, ঠিক তখনই ‘ট্রিউ ট্রিউ’ শব্দ কানে এল। শব্দগুলো কানে পৌঁছাতেই খানিকটা হকচকিত হলাম। ডাকটা আমার পরিচিত। এই...