Home / দৈনিক কালেরকণ্ঠ

দৈনিক কালেরকণ্ঠ

ঝুঁটিয়াল বাতাসি

ছবি: ইন্টারনেট। বিরল দর্শন। একসময় শীতে পার্বত্য এলাকায় দেখা যেত। হালে দেশে এদের দেখা যাওয়ার তেমন একটা নজির নেই। আশির দশকেও পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে দেখা যাওয়ার রেকর্ড রয়েছে। প্রাকৃতিক আবাসস্থল বিক্ষিপ্ত গাছ-গাছালি, পর্ণমোচী বন। বন প্রান্তরের ন্যাড়া গাছ বেশি পছন্দ। একাকী, জোড়ায় কিংবা ছোট দলে বিচরণ করে। অবসরে দলের সবাই …

Read More »

লাল লেজা মৌটুসি

ছবি: ইন্টারনেট আবাসিক পাখি। যত্রতত্র দেখা না গেলেও সিলেট ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে নজরে পড়ে। মনোহর রূপ। কণ্ঠস্বরও সুমধুর। প্রথম দর্শনেই যে কেউ মুগ্ধ হবেন। তবে সেটি অবশ্যই পুরুষ পাখির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। কারণ স্ত্রী ও পুরুষ পাখির চেহারায় বিস্তর তফাত রয়েছে। পুরুষের তুলনায় স্ত্রী পাখি অনেকটাই নিষ্প্রভ। রূপের এমন পার্থক্য সত্ত্বেও …

Read More »

সাদা ভ্রু নীল চটক

শীতের পরিযায়ী। চিরহরিৎ বনের বাসিন্দা। অথচ ঘন জঙ্গল কিংবা দীর্ঘ বন এড়িয়ে চলে। তবে সুচালো পত্র-পল্লবের বন কিংবা পাইন বনে বিচরণ রয়েছে। একাকী কিংবা জোড়ায় জোড়ায় ঘুরে বেড়ায় খাদ্যের সন্ধানে। চেহারাটা পরিপাটি রাখতে নিয়ম করে গোসল করে। কণ্ঠস্বর সুমধুর। ‘ট্রিলস…ট্রিলস…’ সুরে গান গায়। পুরুষ পাখির রূপ নজরকাড়া। শরীরটাকে ফুলিয়ে বসলে …

Read More »

সাদা মানিকজোড়

অতি বিরল প্রজাতির পরিযায়ী পাখি ‘সাদা মানিকজোড়’। বাংলাদেশে এরা আসে ভরা শীতে। তবে সংখ্যায় বেশি নয়, বড়জোর দু-চার জোড়া দেখা যায়। কালেভদ্রে এদের দেখা মেলে বিস্তৃত হাওর-বাঁওড় কিংবা জলাশয়ে। একাকী কিংবা জোড়ায় জোড়ায় ঘোরে এরা। অনেক সময় ছোট-বড় দলেও দেখা যায়। এ সময় সবাই সমবেত হয়ে কর্কশ কণ্ঠে ডাকতে থাকে। …

Read More »

ছোট হরিয়াল

ছবি: ইন্টারনেট। বিরল দর্শন আবাসিক পাখি। বেশ তাগড়া, গাঁট্টাগোট্টা গড়ন। দেখতে অনেকটাই কবুতরের মতো। সুদর্শনও বটে। একসময় দেশের চিরহরিৎ বনাঞ্চলে প্রচুর দেখা যেত। হালে আর সেভাবে নজরে পড়ে না। ওদের বিচরণ ক্ষেত্র গ্রীষ্মমণ্ডলীয় অঞ্চলে উঁচু গাছের চিরসবুজ বনের পত্রপল্লবের আড়ালে। বিচরণ রয়েছে মিশ্র পর্ণমোচী অরণ্যেও। স্বভাবে খানিকটা লাজুক ও শান্ত। …

Read More »

লাল মাছরাঙা

বিরল আবাসিক পাখি। সুন্দরবন ছাড়া দেশের অন্য কোথাও দেখা মেলে না। নিকট প্রতিবেশী ভারতের সিকিম, আসাম, নাগাল্যান্ড, মণিপুর ও পশ্চিমবঙ্গে পাখিটির বিচরণ রয়েছে। এ ছাড়া নেপাল, ভুটান, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, লাওস, চীন, জাপান, কোরিয়া, তাইওয়ান, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন ও ইন্দোনেশিয়ায় এর সন্ধান মেলে। বিশ্বে বিপদমুক্ত হলেও বাংলাদেশে লাল মাছরাঙা সংকটাপন্ন। দেশের …

Read More »

কালাগলা মানিকজোড়

লাল রঙের লম্বা দুটি পায়ে মাছ শিকারের জন্য অল্প পানিতে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে ময়ূররঙা গলা ও লম্বা কালো চঞ্চুধারী কোনো সারস- এমন দৃশ্য দেখার জন্য সুন্দরবন ও আশপাশের জেলাগুলোতে হন্যে হয়ে ঘুরি। দেশের বিভিন্ন এলাকায় যোগাযোগ করে খোঁজ পাওয়ার জন্য উদ্গ্রীব থাকি। কিন্তু খবর মেলে না। ভাবি, বিরল দর্শন পরিযায়ী …

Read More »

কমলাপেট হরবোলা

‘কমলাপেট হরবোলা’ বাংলাদেশের আবাসিক পাখি। সুদর্শন-স্লিম গড়নের প্রজাতিটি পাহাড়ি এলাকার চিরসবুজ বনের বাসিন্দা। বিচরণ করে পারিবারিক দলে। একাকীও দেখা যায় মাঝেমধ্যে। স্বভাবে ভারি চঞ্চল। কোথাও এক দণ্ড চুপচাপ বসে থাকতে নারাজ। একবার গাছের এ ডালে তো পরক্ষণেই ওই ডালে উড়ে বেড়ায়। ব্যস্ততায় সময় কাটিয়ে দেয় সারা দিন গাছগাছালিতে ঘুরে। অবশ্য …

Read More »

বড় জলকবুতর

সুলভ দর্শন পরিযায়ী পাখি। কেবল শীতে এ প্রজাতির আগমন ঘটে এ দেশে। পরিযায়ী হয়ে আসে দক্ষিণ রাশিয়া ও উত্তর-পূর্ব মঙ্গোলিয়া থেকে। আশ্রয় নেয় বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে। বাংলাদেশ ছাড়াও শীতে এ প্রজাতির সাক্ষাৎ মেলে ভারত ও পাকিস্তানে। শীত মৌসুমে খাবারের সন্ধানে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের নদ-নদীতে বিচরণ করতে দেখা যায় জলকবুতরকে। রাজধানীর …

Read More »

প্যারা শুমচা

স্থানীয় প্রজাতির বনচর পাখি। গড়ন ত্রিভুজাকৃতির। আকর্ষণীয় চেহারা। শরীরের তুলনায় লেজের দৈর্ঘ্য বেমানানই বটে। হঠাৎ দেখলে মনে হতে পারে কেউ লেজটা কেটে দিয়েছে। চিরসবুজ অরণ্যের বাসিন্দা। দেশে বলতে গেলে একমাত্র সুন্দরবনেই দেখা মেলে। সাধারণত একাকী বিচরণ করে। তবে মাঝেমধ্যে জোড়ায়ও দেখা যায়। স্বভাবে ভারি চঞ্চল। ওড়ার চেয়ে লাফায় বেশি। খুব …

Read More »