Home / বাংলাদেশ প্রতিদিন / লালচাঁদি ফুটকি

লালচাঁদি ফুটকি

ছবি: ইন্টারনেট।

‘লালচাঁদি ফুটকি’ পাখির প্রকৃত বাংলা নাম:, ‘পাটকিলে-মাথা পাতা ফুটকি’। ইংরেজি নাম:, ‘চেস্টনাট-ক্রাউন্ড ওয়ার্বলার’(Chestnut-crowned warbler) । আর বৈজ্ঞানিক নাম: ‘Seicercus castaniceps’। এদের প্রাকৃতিক আবাসস্থল গ্রীষ্ম মণ্ডলীয় আর্দ্র নিম্নভূমির বন এবং আর্দ্র পার্বত্য অরণ্য। দেখা যায় রেডোডেনড্রন এবং ওক বনেও। স্বভাবে এরা পরিযায়ী। দেশে যত্রতত্র দেখা যায় না। চেহারা চড়ুই আকৃতির হলেও দেখতে সুশ্রী। নজরকাড়া রূপ।

শরীরের তুলনায় লেজ খানিকটা বড়। প্রজনন মৌসুমে নিজ বাসভূমিতে চলে যায়। বিচরণ করে একাকি কিংবা জোড়ায়ও। অস্থিরমতি পাখি। চঞ্চল। প্রজাতির বিচরণ এলাকা বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, মিয়ানমার, চীন, লাওস, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও ইন্দোনেশিয়া।

এদের গড় দৈর্ঘ্য ৯.৫ সেন্টিমিটার। ওজন ৪-৬ গ্রাম। স্ত্রী-পুরুষ পাখি দেখতে একই রকম। তুলনামূলক পুরুষ সামান্য লম্বা। মাথা পাটকিলে। ঘাড় নীলাভ ধূসর। পিঠের মাঝ বরাবর নীলাভ ধূসর। দুপাশ জলপাই সবুজ। ডানার প্রান্ত পালক কালচে ধূসর। ডানার মাঝখানে হলদেটে চওড়া দাগ। লেজ হলুদাভ সবুজ। থুতনি ও গলা গাঢ় ধূসর। বুকের নিচ থেকে ক্রমশ হালকা ধূসর হয়ে লেজতলে মিলেছে। চোখের বলয় সাদাটে, মনি বাদামি। ঠোঁট উপরের অংশ কালচে বাদামি। নিচের অংশ হলুদ। পা ময়লা হলদে। অপ্রাপ্ত বয়স্কদের রঙ ভিন্ন।

লেখক: আলম শাইন। কথাসাহিত্যিক, কলামলেখক, বন্যপ্রাণী বিশারদ ও পরিবেশবিদ।
সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন, 15/05/2017

আরো পড়ুন